ভোর ৫:৩১,বুধবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং , ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
«» আলতাফ হোসেন গোলন্দাজের কবর জিয়ারত করলেন বাবেল গোলন্দাজ এমপি «» আগামীকাল আলতাফ হোসেন গোলন্দাজের ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী «» গফরগাঁওয়ে শীলা নদীর পুনঃখনন শুরু , অতিরিক্ত ৯০ হাজার টন ফসল উৎপাদনের আশা «» বঙ্গবন্ধু গ্যালারি উদ্বোধন করলেন ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল এমপি «» প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা পরিচয় ব্যবহারকারী গফরগাঁওয়ের মোশারফ প্রতারক গ্রেফতার «» মুক্তিযোদ্ধাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা «» দেশের বিভিন্ন স্থানে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা «» গফরগাঁওয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের বিভিন্ন বিদ্যালয়ে উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন «» হোসেনপুরে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা «» গফরগাঁওয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত

আবরার হত্যা: পলাতক ৪ আসা‌মির সম্প‌ত্তি ক্রো‌কের নি‌র্দেশ

দৈনিক বাংলা পত্রিকা ডেস্কঃ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদল্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার পলাতক চার আসা‌মির সম্প‌ত্তি ক্রো‌কের নি‌র্দেশ দি‌য়ে‌ছেন আদালত।

মঙ্গলবার (০৩ ডি‌সেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. কায়সারুল ইসলাম এ আ‌দেশ দেন।

পলাতক চার আসা‌মি হ‌লেন- মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম, মোর্শেদ অমত্য ইসলাম ও মোস্তবা রাফিদ। এর ম‌ধ্যে মোস্তবা রা‌ফিদের নাম এজাহা‌রে ছিল না। অভিযোগপত্রে তার নাম যুক্ত করা হয়।

এর আগে গত ১৮ নভেম্বর পলাতক ওই চার আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন একই আদালত। সংশ্লিষ্ট থানা পরোয়ানা তামিলসংক্রান্ত বিষয়ে প্রতিবেদন (আসামিদের নির্দিষ্ট ঠিকানায় না-পাওয়া) জমা এবং ওই আসামিদের গ্রেপ্তারে অপারগ হয়ে আদালতের শরণ নিলে আদালত আজ তাদের বিরুদ্ধে ক্রোকি পরোয়ানা ও হুলিয়া জারি করেন।

গত ১৩ নভেম্বর আবরার হত্যা মামলায় ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট দেওয়া হয়। মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত শেষে এই চার্জশিট দেয়। এই মামলার ২১ আসামিকে ঘটনার পর গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা বর্তমানে কারাগারে আছেন। চার্জশিটভুক্ত সব আসামি বুয়েটের ছাত্র ও ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

উল্লেখ্য, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার জেরে বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে গত ৬ অক্টোবর রাতে ডেকে নিয়ে যান বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের সিঁড়ির করিডর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ফাহাদের বাবা মো. বরকত উল্লাহ ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।আগামী ৫ জানুয়ারি ২০২০ মামলার পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

দৈনিক বাংলা পত্রিকা / তওহিদুল ইসলাম 

Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।