সন্ধ্যা ৭:৫৯,সোমবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

গফরগাঁওয়ের বারইগাঁও গ্রামে রহস্যময় আগুনে আতংকিত গ্রামবাসী । তদন্তে নেমেছে থানা পুলিশ

আতাউর রহমান মিন্টু ও জাহিদ হাসান নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার বারইগাঁও গ্রামের কয়েকটি বাড়িতে রহস্যময় আগুনের ঘটনা ঘটছে। এ নিয়ে পুরো গ্রমে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে । কোন সময় আগুন লেগে পুড়ে ছারখার হয়ে সর্বশান্ত হয়ে যাবে এই আতংকে ভুগছে এ গ্রামের প্রায় ৩০টি পরিবার। শুক্রবার সন্ধ্যায় বারইগাঁও গ্রামে গিয়ে এ তথ্য জানা গেছে। ইতিমধ্যে রহস্যময় আগুনে সর্বশান্ত হয়ে গেছে একটি পরিবার , কয়েক লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে আরেকটি পরিবারের। আগুনের কারন খুঁজতে তদন্তে নেমেছে পাগলা থানা পুলিশ।
বারইঁগ্রাম গিয়ে জানা যায়, সর্বশেষ শুক্রবার বিকাল পাঁচটার দিকে গ্রামের কৃষক মুকবুল মিয়ার (৪০) বসত ঘরে আগুন লেগে মুকবুল মিয়ার বসত ঘরটি সম্পূর্ন ভস্মীভ’ত হয়। মুকবুল মিয়া ও তার পরিবারের লোকজন এ সময় মাঠের মরিচ ক্ষেতে কৃষিকাজে ব্যস্ত ছিল । দরিদ্র কৃষক মুকবুল মিয়া ও তার পরিবার আগুনে সর্বশান্ত হয়ে গেছে। গত ১মার্চ শুক্রবার গভীর রাতে রোমেনা খাতুনের ঘরে রহস্যময় আগুন লাগে । বাড়ির লোকজন টের পেয়ে সাথে সাথে আগুন নেভাতে সমর্থ হয়, রোমেলা খাতুনের বিছানাপত্র ও আসবাবপত্র পুড়ে যায়

২৬ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার গভীর রাতে নুরুল ইসলামের নুরুল ইসলামের গোয়াল ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। মূর্হুতের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। প্রতিবেশী তফাজ্জল ও কাজলের বসত ঘরেও আগুন ধরে যায়। বাড়ির লোকজন টের পেয়ে আধা ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষনে নুরুল ইসলামের গোয়ালঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ ঘটনায় নুরুল ইসলামের একটি গরু মারা যায়। আরও দুইটি গরু অগ্নিদগ্ধ হয়। আগুন নেভানোর সময় গৃহবধূ কল্পনা (৩৫) ও নুরজাহান (২৬) আহত হয়।
এছাড়াও ২৪ ফেব্রুয়ারি রবিবার ও ২৫ ফেব্রুয়ারি সোমবার রাতে পরপর দুইদিন কে বা কারা নুরুর ইসলামের বাড়ির খড়ের গাদায় পেট্রাল ঢেলে দুইটি বড় খড়ের গাদা পুড়িয়ে দেয়। সবগুলো ঘটনায় পেট্রোর ঢেলে আগুন দেওয়া হয়েছে বলে নুরুল ইসলাম, মুকবুল মিয়া ও তাদের বাড়ির লোকজন ধারনা করছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ লিটন মিয়া বলেন, জানা মতে এই পরিবারগুলোর কোন শক্র নেই। কে বা কারা শক্রতাবশত এ জঘন্য কাজটি করেছে তা তারা ধারনা করতে পারছেন না । এই রহস্যময় আগুন নিয়ে গ্রামের মানুষ আতংকে আছে।
পাগলা থানার ওসি মোঃ শাহিনুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন । তিনি বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

দৈনিক বাংলা পত্রিকা /জিয়াউল হক রুবেল

 
Express Your Reaction
Like
Love
Haha
Wow
Sad
Angry
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।